এপেক্স বাংলাদেশ ঢাকা মেডিকেল কলেজে চিকিৎসা-সুরক্ষা সামগ্রী ও ঔষধ হস্তান্তর করেছেেন

স্টাফ রিপোর্টারস্টাফ রিপোর্টার
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১২:৫১ AM, ২৮ এপ্রিল ২০২১

আন্তর্জাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এপেক্স বাংলাদেশ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটে করোনা চিকিৎসা সহায়তায় করোনা চিকিৎসা – সুরক্ষা সামগ্রী ও ঔষধ হস্তান্তর করেছে মানবিকতায় একসাথে আমরা’এই প্রত্যয়ে সেবা কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় ২৮শে এপ্রিল,২০২১ বুধবার আর্ন্তজাতিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন দ্যা ন্যাশনাল এসোসিয়েশন অব এপেক্স ক্লাবস অব বাংলাদেশ(এপেক্স বাংলাদেশ) এর উদ্যোগে এবং জেলা -১ ও জেলা -২ এর ব্যবস্থাপনায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা( কোভিড -১৯) সুরক্ষা ও চিকিৎসা সামগ্রী হাসপাতালের মান্যবর পরিচালক বিগ্রেডিয়ার নাজমুল হক এর নিকট হস্তান্তর করা হয়। এসময় সহকারী পরিচালক ডা.মো. আশরাফুল আলম,হাসপাতালের এসএলপিপি ডা.মো. মশিউর রহমানসহ সিনিয়র ডাক্তারগণ উপস্থিত ছিলেন।এপেক্স বাংলাদেশের পক্ষে উপস্থিত ছিলেন জেলা -১ এর গভর্নর এপে. সুজিত কুমার সাহা সুব্রত, জেলা-২ এর গভর্নর এপে.মনিরুল ইসলাম,লাইফ গভর্নর এপেক্সিয়ান মোশারফ হোসেন মিশু, অতীত জাতীয় সভাপতি এপে. খুরশিদ উল আলম অরুণ, ন্যাশনাল ট্রেজারার এপে.হারুনুর রশিদ, এপেক্স ক্লাব অব ঢাকার সভাপতি এপেক্সিয়ান কবির আহমেদ ,এপেক্স ক্লাব অব ঢাকা মিডটাউনের প্রেসিডেন্ট এপেক্সিয়ান এএসএম নাফিস খান রোহান।এই সেবা কার্যক্রমটি সমন্বয় করেন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের সহকারী রেজিস্ট্রার( মেডিসিন) ডা. মো. আরমান হোসেন ও এপেক্স ক্লাব অব ঢাকা মিডটাউনের সদস্য এপেক্সিয়ান ডা. সুমাইয়া মাহনুর।করোনা সুরক্ষা ও চিকিৎসা সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে ১০টি নেবুলাইজার মেশিন, অতিরিক্ত নেবুলাইজার মাস্ক, ৮০ বক্স(৮০০ এ্যাম্পুল) নেবুলাইজার মেডিসিন সল্যুশন ৪০ বক্স সার্জিকেল মাস্ক, ২ বক্স হ্যান্ড স্যানিটাইজার( পেন রিফিল) । এই ছাড়াও এই সময়ে করোনা সচেতনতায় লিফলেট বিতরণ ও ফেস্টুন লাগানো হয়।করোনার প্রাদুর্ভাবের শুরু হতে ইতোমধ্যে সারা দেশের ৭০টির বেশি জেলা, উপজেলায় ৩০০(তিনশত) এর বেশি নেবুলাইজার মেশিন, ১৬ হাজার জনের বেশি রুগীর জন্য নেবুলাইজার সলুশ্যান এ্যাম্পুল,প্রচুর পরিমানে মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস, সীমিত সংখ্যক পিইপি, করোনা প্রতিরোধে ও সচেতনতায় অর্ধলক্ষ লিফলেট, প্রচুর পরিমাণে ফেস্টুনসহ বিভিন্ন সামগ্রী বিতরণ করা হয়।ইতোমধ্যে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতাল ( পিজি হাসপাতাল) ও জাতীয় বক্ষব্যাধি ইনিস্টিউ হাসপাতালেও এপেক্স বাংলাদেশ মানবিক সেবাকার্যক্রমে অংশ নিয়েছে।

আপনার মতামত লিখুন :