লালমনিরহাটে যৌতুকের জন্য স্ত্রীর পায়ের রগ কর্তন

জেলা প্রতিনিধিজেলা প্রতিনিধি
  প্রকাশিত হয়েছেঃ  ১১:৫৬ PM, ০৩ জুন ২০২১

লালনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলায় যৌতুকের জন্য স্ত্রী নির্যাতনের অভিযোগে অছিউর রহমান প্রাণ (২৮) নামে এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার (৩ জুন) সকালে উপজেলার দইখাওয়া বাজার থেকে প্রাণকে আটক করে পুলিশ। পরে দুপুরের দিকে তাকে লালমনিরহাট জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

স্ত্রী নির্যাতনের ঘটনায় আটককৃত প্রাণ উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের পশ্চিম বেজ গ্রামের মোকলেছুর রহমানের ছেলে। ভুক্তভোগী দিলরুবা আক্তার টুম্পা উপজেলার সিংগীমারী ইউনিয়নের দক্ষিন গড্ডিমারী গ্রামের মৃত মোফাজ উদ্দিনের মেয়ে।

এ বিষয়ে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও হাতীবান্ধা থানার উপ-পরিদর্শক(এসআই) ইব্রাহিম বলেন, স্ত্রী টুম্পাকে নির্যাতনের অভিযোগে প্রাণকে আটক করা হয়েছে। সে দীর্ঘ দিন পলাতাক ছিলো। পরে বৃহস্পতিবার সকালে প্রাণকে আটক করা হয়েছে।

এ বিষয়ে হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, আটককৃত প্রাণকে লালমনিরহাট জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

উল্লেখ্য: প্রায় ৫ বছর আগে ভালোবেসে আদালতে বিয়ে করেন প্রাণ ও টুম্পা। বিয়ের পর শাশুড়ি মালতি টুম্পাকে বাপের বাড়ি থেকে ৫ লক্ষ্য টাকা আনতে বলেন। বোনের সুখের কথা ভেবে ভাইয়েরা ধার-দেনা করে ৩ লক্ষ্য টাকা যোগাড় করে দেয়। পরে আরও ২ দুই লক্ষ টাকার জন্য চাপ প্রয়োগ করে প্রাণ। এতে টুম্পা রাজি না হলে গত ২৭ মার্চ প্রাণের মা, ছোট ভাই মিলে বাশের লাঠি দিয়ে শুরু করে মারধর। এর এক পর্যায়ে মা ও ভাইয়ের সহযোগীতায় প্রাণ ধারালো ছুড়ি দিয়ে টুম্পার পায়ের রগ কেটে দেয়। খবর পেয়ে থানা পুলিশের সহযোগীতায় টুম্পাকে উদ্ধার করে তার পরিবার। পরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

আবির হোসেন সজল/ তিস্তা এক্সপ্রেস

আপনার মতামত লিখুন :